"হেপাটাইটিস বি" কি ?? লক্ষন ও রোগীর চিকিৎসা পদ্ধতি(সচেতনতা প্রয়োজন)

16
25

বি:দ্র: সবাইকে অনুরোধ করব লেখাটি পড়ার পর নিজেদের  হেপাটাইটিস বি আছে কিনা এটা পরীক্ষা করাবেন খুব বেশি খরচ হয় না ৩০০-৪০০টাকা লাগে পরীক্ষা করতে।

গোটা বিশ্বে প্রতি ১২ জনে একজন! আপনিও হতে পারেন তাদের একজন! বর্তমান বিশ্বে
প্রতিবছর সারা বিশ্বে শুধু হেপাটাইটিস বি ও সি’র সংক্রমণে মারা যাছে সাড়ে ১০ লাখ মানুষ। বাংলাদেশের মোট জনসংখ্যার ৫ ভাগ নাগরিক হেপাটাইটিস-বি ভাইরাসের দীর্ঘমেয়াদি বাহক। এতেই বোঝা যায় কি ভয়াবহ থাবা বিস্তার করে ভাইরাসগুলো একের পর এক প্রাণ কেড়ে নিচ্ছে!



মানবদেহের জন্য সবচেয়ে ক্ষতিকারক ভাইরাস “হেপাটাইটিস”এর যত দ্রুত সংক্রমণ ঘটছে তার ভয়াবহতা এইডসের চেয়েও ভয়ঙ্কর দুঃসংবাদ নিয়ে গোটা মানবজাতির জন্য হুমকি স্বরূপ হয়ে দাঁড়িয়েছে। হেপাটাইটিস বা লিভারের একিউট এবং ক্রনিক সংক্রমণের জন্য দায়ী লিভার ভাইরাসগুলো হচ্ছে হেপাটাইটিস-এ, হেপাটাইটিস-বি, হেপাটাইটিস-সি, হেপাটাইটিস-ডি এবং হেপাটাইটিস-ই। বিশ্ব স্বাস্থ্য সংস্থার মতে, পৃথিবীতে দুই বিলিয়ন বা ২০ কোটি লোক এই সমস্ত ক্ষতিকারক ভাইরাসের সংক্রমণের শিকার। এদের মধ্যে ৫০০ মিলিয়ন লোক ক্রনিক সংক্রমিত। প্রতিবছর সারা বিশ্বে শুধু হেপাটাইটিস বি ও সি’র সংক্রমণে মারা যাছে সাড়ে ১০ লাখ মানুষ। বাংলাদেশের মোট জনসংখ্যার ৫ ভাগ নাগরিক হেপাটাইটিস-বি ভাইরাসের দীর্ঘমেয়াদি বাহক। এতেই বোঝা যায় কি ভয়াবহ থাবা বিস্তার করে ভাইরাসগুলো একের পর এক প্রাণ কেড়ে নিচ্ছে! হেপাটাইটিস ‘বি’ সংক্রমণ কি করে হয়: অনিরাপদ যৌনতা/অবাধ যৌনতা, একই সিরিঞ্জ, সুঁই বারবার ব্যবহার করা, শরীরে উল্কি আঁকা, স্যালুনে ব্যবহৃত ক্ষুর, রেজর, ব্লেড, কাঁচি হতে হাসপাতালে হেপাটাইটিস বি আক্রান্তদের পরিচর্যার কারণে, ডেন্টিষ্টের ব্যবহৃত যন্ত্রপাতি, অপারেশন থিয়েটারে ব্যবহৃত(অনিরাপদ) যন্ত্রপাতি, সিরিঞ্জ এ মাদক নেয়া, হেপাটাইটিস ‘বি’ বাহকের সিগারেট, লালা, তার সংস্পর্শে থাকা, আক্রান্তের রক্ত নেয়া, নবজাতকের আক্রান্ত হবার সমূহ সম্ভাবনা থাকে মায়ের বুকের বুকের দুধ থেকে,যদি মা হেপাটাইটিস ‘বি’ সংক্রমিত থাকেন। (বাবা মায়ের যেকোনো একজন আক্রান্ত থাকলে তাদের নবজাতক আক্রান্ত হতে পারে) হেপাটাইটিস ‘বি’ এর উপসর্গ:

খুব সহজে বোঝা যায়না ঠিক কবে ভাইরাসটি মানবদেহে সংক্রমিত হয়েছে. দীর্ঘদিন বসবাস করে কোনরকম উপসর্গ ছাড়াই। এক সময় মাথা ব্যথা, ফ্লু, শীত শীত ভাব,গায়ে প্রচণ্ড জ্বর, জন্ডিস, লিভার এবসেস, বমি, পেটের ডান দিকে প্রচণ্ড বা হালকা ব্যথা বোধ থাকতে পারে। রোগ নির্ণয়: উপসর্গ গুলো দেখে বিশেষজ্ঞ ডাক্তারগণ বিভিন্ন পরীক্ষা নিরীক্ষা করে থাকেন। রক্তের HBsAg পরীক্ষার মাধ্যমে নিশ্চিত হওয়া যায়। এছাড়াও উপসর্গ দেখে, লিভারের Ultra Sound, HBsAg, SGOT, ALT, BILLIRUBIN , AST CT Scan ,Andoscopy ইত্যাদির মাধ্যমেও রোগের জটিলতা নির্ণয় করা হয়।

নিরাময় বা চিকিৎসা:


হেপাটাইটিস ‘বি’ এর শতভাগ সফল চিকিৎসা এখনো আবিষ্কৃত হয়নি, অনেক ক্ষেত্রে নতুন উদ্ভাবিত ঔষধ গুলো ভাল ফল দিছে বলে গবেষকরা দাবি করলেও আপাত কোনও বিশ্বস্ত ঔষধ বাজারে আসেনি। হেপাটাইটিস ‘বি’ আক্রান্তের চিকিৎসা শুরু করবার আগে যেটা নিশ্চিত হতে হয় তা হল ভাইরাসের DNA (পরিমাণ ও ধরন) পরীক্ষা। DNA পরীক্ষা যদি পজিটিভ হয় তবে বিশেষজ্ঞ চিকিৎসক নিশ্চিত হয়ে নেন আক্রান্ত রোগীর Portal Hypertension অথবা অন্য কোন জটিলতা আছে কিনা। তার ফাইব্রোসিস পরিবর্তন বা সিরোসিস হয়েছে কিনা, এসোফেগাল ভ্যারিক্স (গলবিলের নিচের অংশে এক ধরনের রক্ত-বাহিত শিরা)এ কোনো পরিবর্তন এসেছে কিনা। সাধারণত লিভার এর পরিবর্তনের(সিরোসিস) সাথে সাথে এসোফেগাল ভেরিক্স গুলো বদলে যায়। রক্তের ক্রমাগত চাপে এই ভ্যারিক্স গুলো ছিঁড়ে গিয়ে রোগীর নাক-মুখ দিয়ে রক্তপাত ঘটতে পারে, এবং রোগীর মৃত্যু হতে পারে। উন্নত বিশ্বে ভ্যারিক্স চিকিৎসায় এক ধরনের কৃত্রিম রক্তনালী (Steosis) তৈরি করে লিভারের অকার্যকর অংশ থেকে রক্তনালী সরাসরি ভ্যারিক্স এ প্রবাহিত করা হয়। বিকল্প হিসেবে আমাদের দেশে EVL বা এসোফেগাল ভ্যারিক্স লাইগেশন পদ্ধতি চালু আছে। তুলনামূলক ভাবে যার খরচ অত্যন্ত কম। মাত্র ১০/১২ হাজার টাকায় ৩/৪ টি ভ্যারিক্স লাইগেশন করা সম্ভব। এরপর বিশেষজ্ঞ চিকিৎসক রোগীর ডায়াবেটিক বা অন্য কোনো স্বাস্থ্য সমস্যা জেনে নিয়ে রোগীর জন্য থেরাপি নির্ধারণ করবেন। হেপাটাইটিস ‘বি’ এর চিকিৎসায় এখন খাবার ট্যাবলেট বেরিয়েছে যা খুব বেশি ব্যয় বহুল নয়। কার্যকর চিকিৎসা হলো ইন্টারফেরন, পেগালিটেড ইন্টারফেরন আলফা ২-বি বা পেগাসিস। সাথে মুখে খাবার ঔষধ ল্যামিভুডিন, এডিফোভির আর সর্বশেষ সংযোজন টেলবিভুডিন ইত্যাদি। উন্নত চিকিৎসার আশায় আজকাল অনেকেই বাংলাদেশ ছেড়ে ব্যাংকক,ভারত কিম্বা থাইল্যান্ডে যান। আসলে আমাদের দেশে অণুজীব বিজ্ঞান গবেষণা এবং এ ধরনের রোগ নির্ণয়ের যে সমস্ত ল্যাবরেটরি আছে তা মান সম্মত নয় বিধায় অনেক রোগীকে তার PCR পরীক্ষার জন্য রক্ত ভারত-সিঙ্গাপুর প্রেরণ করতে হয়। বাংলাদেশে বিভিন্ন ল্যাব এই টেস্টগুলো করছে তবে মোটেও নির্ভুল পরীক্ষা করতে পারছেনা। আমাদের দেশের আলট্রা-সাউন্ড মেশিনগুলোর মান কিম্বা সনো-লজিস্টদের দক্ষতা এতই কম যে তারা সঠিক ভাবে রোগ নিরূপণ করতে পারেনা। তারপরেও বর্তমানে বাংলাদেশে হেপাটাইটিস ‘বি’ এর চিকিৎসায় ডাক্তারগণ পাশ্চাত্যের তুলনায় ভালো ফল পাচ্ছেন। হেপাটাইটিস ‘বি’ আক্রান্ত রোগীর জন্য কতিপয় টিপস: যৌন সম্ভোগের সময় কনডম ব্যবহার করুন। কাঁচা সালাদ, ফল-মূল বেশি খাবেন। তেল-চর্বি যুক্ত খাবার সম্পূর্ণ নিষিদ্ধ। গরু বা খাসির মাংস যেগুলো লাল মাংস হিসেবে পরিচিত এগুলো খাবেন না। লবণ বা সোডিয়াম সল্ট একেবারেই খাবেন না। ভিটামিন বি, অ্যান্টি-অক্সিডেন্ট যথা বিটা ক্যারোটিন, ভিটামিন-সি, ভিটামিন-ই যুক্ত খাবার বেশি খাবেন। প্রতিদিন অন্তত ৪০ মিনিট হাঁটবেন। ব্যায়ামের অভ্যাস করবেন। দিনে একবেলার বেশি ভাত খাবেন না, দুই বেলা রুটি খাবেন। ধূমপান, মদ্যপান নিষিদ্ধ। অযথা কোন মাল্টিভিটামিন খাবেন না। প্রচুর বিশ্রাম নিন। শৃঙ্খলিত জীবন যাপন করুন। পাঠকের উদ্দেশ্যে বলি, আপনি আজ-ই HBsAG পরীক্ষা করে নিন। নিজের এবং পরিবারের সবার। যদি এখনও সংক্রমিত না হয়ে থাকেন তবে অতি দ্রুত হেপাটাইটিস-বি এর প্রতিষেধক টীকা নিন। হেপাটাইটিস ‘বি’ সংক্রমণ থেকে রেহাই পেতে প্রতিরোধ-ই একমাত্র উপায়।

সহায়খ
উৎস : এক

16 COMMENTS

    • ডাক্তারের কাছে যান।আশা করি সঠিক সমাধান পাবেন।

      • একবার টিকা নেওয়ার পরেও কি হেপাটাইটিস বি হতে পারে…???

    • ভয় বা আঙ্কতিক হওয়ার কারন নেই। এখনই বাহিরের খারার ভাজাপোড়া খারাপ ত্যাগ করুন।নিরাপদ পানি পান করুন।বেশি বেশি পান খান।এবং একজন ভাল লিভার ডাক্তারের সাথে যোগাযোগ করুন।খাবারের প্রতি যত্নশীল হউন।:)
      আল্লাহ ভরসা। আশা করি আপনি দ্রুত সুস্থ হয়ে উঠবেন।আপনার hbsga কি??এ,বি,নাকি সি??

  1. আসসালামুআলাইকুম ,
    আমি মুস্তাফিজ, আমি আজ প্রথম আপনার ব্লগ থেকে কিছু পড়ছি, লেখাটি ও ছিল খুব প্রয়োজনীয়, বিশেষ করে এই মুহুর্তে এমন একটা লেখা আমার নিজের জন্য ছিল খুবই জরুরী।
    গত কালকে আমার এক ফ্রেন্ডের বোনকে রক্ত দিতে গিয়ে ধরা পরলো যে, আমার রক্তে “HBs Ag: positive”.
    সেই থেকে আমি খুবই চিন্তার মধ্যে আছি। এই সম্পর্কে জনকন্ঠের গত মে মাসের ১৩ তারিখের প্রকাশিত একটি ফিচার পড়ে অনেক টা সান্তনা পেয়েছিলাম।
    কিন্তু আজ আপনার লেখা ফিচার পড়ে আবার ও নতুন করে ভয় পাওয়া শুরু করলাম। আমি আপনার সাথে যোগাযোগ করতে চাইছিলাম খুবই অল্প সময়ের মধ্যে তাই বলছিলাম, অসুবিধা না মনে করলে আপনি আপনার ফোন নাম্বারটা দিলে আমি আপনার সাথে যোগাযোগ করে নিতে পারতাম।।
    নাম্বারটা আমাকে মেইল ও করে দিতে পারেন।।
    E-mail: mustafij1@gmail.com

  2. Amar-o HbsAg B+, Cut off Value–4.96, onnano test normal ase. Doctor bolesen eta chronic but eta niskrio hoye ase…. kono khoti korte parby na! Poti 3mas porpor test korte bolesen. But at present ami onek weak feel kori r ghum-o kom hoi. Ami apnar appointment nete chai. Could pls give me your appoint???

    amar mail: rabiul.org@gmail.com / reyadrbd@gmail.com

  3. হেপাটাইটিস বি

    হেপাটাইটিস বি কনটেন্টটিতে হেপাটাইটিস বি কী, রোগের লক্ষণ, পরীক্ষা, চিকিৎসা, টিকা, প্রতিরোধ সর্ম্পকে বর্ণনা করা হয়েছে।
    ভাইরাল হেপাটাইটিস বিভিন্ন ধরনের হয়ে থাকে। ভাইরাল হেপাটাইটিসের মধ্যে হেপাটাইটিস বি অন্যতম। কারো কারো ক্ষেত্রে হেপাটাইটিস বি ভাইরাসের সংক্রমণ দীর্ঘস্থায়ী হয় যা থেকে যকৃতের কার্যক্ষমতা হ্রাস,যকৃতের ক্যান্সার অথবা সিরোসিসও হতে পারে।

    হেপাটাইটিস বি কি?
    হেপাটাইটিস বি একটি সংক্রামক রোগ। হেপাটাইটিস বি ভাইরাস সংক্রমণের মাধ্যমে হেপাটাইটিস বি দেখা দেয় যা যকৃতে মারাত্মক সংক্রমণ ঘটায়। রক্ত, বীর্য অথবা শরীরের অন্যান্য তরল পদার্থের মাধ্যমে এই রোগ ছড়ায়। বড়দের ক্ষেত্রে এর সংক্রমণ ভালো হয়ে গেলেও শিশুদের ক্ষেত্রে এর সংক্রমণ দীর্ঘস্থায়ী হয়।

    হেপাটাইটিস বি হয়েছে কি করে বুঝবেন?
    হেপাটাইটিস বি ভাইরাস দ্বারা সংক্রমণের দুই থেকে তিন মাস পর এর লক্ষণ ও উপসর্গগুলো দেখা দেয় । হেপাটাইটিস বি এর লক্ষণ ও উপসর্গ গুলো হাল্কা থেকে মারাত্মক হয়ে থাকে।

    হেপাটাইটিস বি’ হলে সাধারণত: যেসব লক্ষণ ও উপসর্গ দেখা দেয়:
    পেট ব্যথা
    গাঢ় রংয়ের প্রস্রাব
    অস্থিসন্ধিতে ব্যথা
    ক্ষুধা মন্দা
    ক্লান্ত এবং অবসাদ অনুভব করা
    শরীরের চামড়া হলুদ হয়ে যাওয়া এবং চোখ সাদা ফ্যাকাশে হওয়া

    কখন ডাক্তার দেখাবেন
    রোগের লক্ষণ ও উপসর্গ দেখা দেয়া মাত্র ডাক্তারের সাথে যোগাযোগ করে প্রয়োজনীয় ব্যবস্থা গ্রহণ করতে হবে।

    কোথায় চিকিৎসা করাবেন
    জেলা সদর হাসপাতাল
    মেডিকেল কলেজ হাসপাতাল
    বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিব মেডিকেল বিশ্ববিদ্যালয়
    বিশেষায়িত সরকারী ও বেসরকারী হাসপাতাল

    কি ধরণের পরীক্ষা-নিরীক্ষার প্রয়োজন হতে পারে
    শারীরিক পরীক্ষা-নিরীক্ষা
    রক্তের বিভিন্ন পরীক্ষা
    যকৃতের পরীক্ষা

    কি ধরণের চিকিৎসা আছে
    হেপাটাইটিস বি প্রতিষেধক গ্রহণ
    জীবাণুনাশক ঔষধ সেবন
    যকৃত প্রতিস্থাপন

    আক্রান্ত হবার পর জীবন যাপন পদ্ধতি
    নিরাপদ শারীরিক সম্পর্ক
    অন্যের ব্যবহৃত সুচ/সিরিঞ্জ ব্যবহার না করা এবং নিজের ব্যবহৃতটাও অন্যকে ব্যবহার করতে না দেয়া
    আক্রান্ত ব্যক্তি অন্যকে রক্ত অথবা অন্য কোন অঙ্গ দান করা থেকে বিরত থাকা
    রেজার ব্লেড এবং দাঁত মাজার ব্রাশ অন্যের সাথে আদান-প্রদান না করা
    গর্ভবতী মহিলা যদি হেপাটাইটিস বি ভাইরাস দ্বারা আক্রান্ত হয় তাহলে দ্রুত ডাক্তারকে জানাতে হবে যাতে গর্ভের শিশুর কোন ক্ষতি না হয়।

    হেপাটাইটিস বি কিভাবে প্রতিরোধ করা যায়
    সেলুনে চুল,দাড়ি কাটার সময় আলাদা(Separate and disposable) ব্লেড ব্যবহার করা
    হেপাটাইটিস বি ভাইরাস আক্রান্ত ব্যক্তির সাথে শারীরিক সম্পর্ক থেকে বিরত থাকা
    নিরাপদ শারীরিক সম্পর্ক বজায় রাখা
    শিরাপথে মাদক গ্রহণ করা থেকে বিরত থাকা
    শরীরে ছিদ্র বা উলকি আঁকার ক্ষেত্রে সতর্কতা অবলম্বন করা
    হেপাটাইটিস বি ভাইরাস প্রবণ এলাকায় বেড়াতে যাবার আগে টিকা দেয়া
    যারা চিকিৎসাকর্মী তারা হেপাটাইাটস বি রোগীর চিকিৎসার সময় বাড়তি নিরাপত্তামূলক ব্যবস্থা অবলম্বন করবেন।
    ইনজেকশন দেয়ার সময় একবার ব্যবহারের পর ফেলে দেয়া হয় (Disposable Syringe) এমন সিরিঞ্জ ব্যবহার করতে হবে
    শিশুদের ক্ষেত্রে ৩ ডোজ হেপাটাইটিস-বি টিকা দিলে এটি শিশুকে হেপাটাইটিস-বি ভাইরাস থেকে রক্ষা করবে। শিশুর বয়স ৬ সপ্তাহ হলেই হেপাটাইটিস-বি টিকার ১ম ডোজ দিতে হবে এবং ২৮ দিন বা ১ মাস পরে ২য় ও ৩য় ডোজ হেপাটাইটিস-বি টিকা দিতে হবে। (হেপাটাইটিস-বি টিকা ডিপিটি টিকার সাথে দেয়া হয়)।

    সচরাচর জিজ্ঞাসা
    প্রশ্ন .১ . হেপাটাইটিস বি কেন হয় ?
    উত্তর. হেপাটাইটিস বি ভাইরাস দ্বারা যকৃতে সংক্রমণের মাধ্যমে হেপাটাইটিস বি হয়ে থাকে।

    প্রশ্ন .২ .কাদের হেপাটাইটিস বি হওয়ার ঝুঁকি বেশি থাকে ?
    উত্তর. যাদের হেপাটাইটিস বি হওয়ার সম্ভাবনা বেশি রয়েছে তারা হলেন-

    একের অধিক ব্যক্তির সাথে অনিরাপদ শারীরিক সর্ম্পকে লিপ্ত হলে
    হেপাটাইটিস বি ভাইরাসে আক্রান্ত ব্যক্তির সাথে অনিরাপদ শারীরিক সম্পর্ক হয়ে থাকলে
    শারীরিক মিলনের মাধ্যমে ছড়ায় এমন কোন রোগ থাকলে
    কোন পুরুষ অন্য পুরুষের সাথে শারীরিক সম্পর্ক লিপ্ত হলে
    কারো ব্যবহৃত সুচের মাধ্যমে মাদক নিলে
    মারাত্মকভাবে আক্রান্ত ব্যক্তির সাথে একই বাড়িতে বসবাস করলে
    মানুষের রক্ত পরীক্ষা-নিরীক্ষা সংক্রান্ত কাজ করে যারা তাদের
    কিডনীর অসুখের জন্য যারা হেমোডায়ালাইসিস করেন
    হেপাটাইটিস বি ভাইরাস প্রবণ এলাকায় বেড়াতে গেলে

    প্রশ্ন .৩ . হেপাটাইটিস বি হলে কি ধরণের জটিলতা দেখা দিতে পারে ?
    উত্তর. হেপাটাইটিস বি’র ফলে কখনো কখনো মারাত্মক জটিলতা দেখা দিতে পারে। যেমন :
    যকৃত কলায় ক্ষত বা সিরোসিস (Cirrhosis)
    যকৃতের ক্যানসার
    যকৃত কার্যক্ষমতা নষ্ট হয়ে যাওয়া
    হেপাটাইটিস ডিব’র সংক্রমণ
    কিডনীর বিভিন্ন সমস্যা
    রক্তের ধমনীতে প্রদাহ

    প্রশ্ন. ৪. যকৃতের কার্যকারিতা কেন পরীক্ষা করা হয় ?
    উত্তর. নানা কারণে যকৃতের কার্যকারিতা পরীক্ষা করা হয়।
    যেমন: পরীক্ষার মাধ্যমে-
    যকৃতে যদি কোন রোগ জীবাণুর সংক্রমণ হয়ে থাকে সেটা বুঝা যায়
    রোগের মাত্রা বুঝা যায়
    চিকিৎসা কার্যকর হচ্ছে কিনা সেটা বুঝা যায়

    প্রশ্ন.৫. হেপাটাইটিস বি টিকা নেয়া কাদের জন্য জরুরী?
    উত্তর.
    প্রতিটি নবজাতক শিশুদের
    প্রতিটি শিশু এবং কিশোরদের যাদের জন্মের পর হেপাটাইটিস বি টিকা দেয়া হয়নি
    যাদের যৌনবাহিত কোন রোগ আছে
    শারীরিকভাবে প্রতিবন্ধী ব্যক্তি যারা কোন প্রাতিষ্ঠানিক পরিবেশ থাকেন
    স্বাস্থ্যকর্মী যারা চাকুরী সূত্রে রক্ত সংক্রান্ত বিষয় নিয়ে কাজ করেন
    এইচআইভিতে আক্রান্ত ব্যক্তি
    পুরুষ যারা অন্য পুরুষের সাথে শারীরিক সর্ম্পকে লিপ্ত হন
    যারা ৬ মাসের মধ্যে শারীরিক সর্ম্পকের ক্ষেত্রে সঙ্গী পরিবর্তন করেন
    যাদের দীর্ঘস্থায়ী যকৃতের সমস্যা রয়েছে
    যারা সিরিঞ্জের সাহয্যে অবৈধভাবে মাদক গ্রহণ করেন
    যিনি হেপাটাইটিস বি তে আক্রান্ত ব্যক্তির সাথে বসবাস করেন
    যাদের কিডনির সমস্যা চূড়ান্ত আকার ধারণ করেছে
    শারীরিক সর্ম্পকের ক্ষেত্রে সঙ্গী হেপাটাইটিস বি ভাইরাসে আক্রান্ত হলে
    হেপাটাইটিস বি প্রবণ এলাকায় ভ্রমণের পরিকল্পনাকারীর

    http://www.erubel.com

  4. ভাইয়া আমি হেপাটাইটিস বি পজেটিভ। প্রতি ৬ মাস পর আমার DNA টেস্ট করতে হয়। ডাক্তার ওষুধ দিয়েছে এগুলা না কি কন্টিনিউ খাইতে হবে। এখন এই রোগ থেকে মুক্তি পেতে হলে করণীয় কি?

  5. ভাই গত সপ্তাহে আমার hbs + test এ ৩০২৪ রেজাল্ট আসছে, যা গত মাসে ছিল ২০২৭। রেজাল্ট পয়েট কত থাকা উচিত, বা কত পরিমান বেড়েছে বুঝতেছি না। pls যানান।

  6. অামি বিদেশ জাওয়ার জন্য মেডিক্যাল করি। আমার নাকি ভাইরাস আছে। আখন আমি কি করি?

  7. pajti pora onal baalo laglo.ami hbs ag (-ve) negative bloodtest ar por pahaci ami akon ki korta pari?amar jondis aca.

  8. amar HBS Ag positive dora porche aj theke 12 yeas age doctor bolchr ayta normal ache atar kono oshod ney ayta nije theke chole jabe onkta fox ar mothi akbar sere gele r hoyna ay kotha ta ki sothik r sothik na hole ar kono chigisa ache janaben pls…amar boys akhon 25 years 5month chole

Comments are closed.